শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে পোতাজিয়া ইউনিয়নের চরাচিথুলীয়ার মন্ডলপাড়ায় ধান ক্ষেত থেকে কিশোর রাসেলের অর্ধ গলিত লাশ গত মঙ্গলবার বিকালে উদ্ধারের ঘটনায় হত্যাকারী মো: জাহাঙ্গীরকে গ্রেপ্তার করেছে থানা পুলিশ।

জাহাঙ্গীর ব্যাটারি চালিত ভ্যান ছিনতাইয়ের জন্যই কিশোর রাসেলকে হত্যা করেছে বলে জানিয়ে বৃহস্পতিবার(৫ অক্টোবর) দুপুরে শাহজাদপুর থানায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(শাহজাদপুর সার্কেল) মোঃ কামরুজ্জামান।

এর আগে কিশোরের বাবা মো: রবিউল ইসলাম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি দেখে রাসেলকে শনাক্ত করে এবং নিহত রাসেলের বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে শাহজাদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দ্বায়ের করেন।

নিহত কিশোর রাসেল(১৫) পাশ্ববর্তী পাবনা জেলার ফরিদপুর থানার ডেমরা গ্রামের মো: রবিউল ইসলামের ছেলে। অপরদিকে গ্রেফতারকৃত আসামী জাহাঙ্গীর (৩১) উপজেলার পোতাজিয়া ইউনিয়নের চরাচিথুলীয়ার মন্ডলপাড়া গ্রামের মো: সাঈদ মন্ডলের ছেলে।  

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(শাহজাদপুর সার্কেল) মোঃ কামরুজ্জামান লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, জাহঙ্গীর আগে সিএনজি চালক ছিল কিন্তু সিএনজি বিক্রি দেওয়ার পর সে এখন রাজমিস্ত্রীর কাজ করে অল্প আয় দিয়ে তার সংসার চালানো কঠিন হওয়ায় অভাবের তাড়নায় সে ভ্যান ছিনতাইয়ের পরিকল্পনা করে। সেই পরিকল্পনা মোতাবেক সে গত রবিবার সন্ধ্যায় কিশোর রাসেলকে চরাচিথুলিয়া গ্রামের মন্ডলপাড়াতে ঘোষি আনার জন্য ভাড়া করে এবং মাঠের মধ্যে বস্তা আছে বলে তাকে নিয়ে গিয়ে মাথায় আঘাত করে পরনের লুংগি দিয়ে গলায় পেচিয়ে হত্যা করে। ও রাসেলের পকেটে থাকা মোবাইল ও ভ্যানের চাবি বের করে ভ্যান নিয়ে পালিয়ে যায়।

তিনি আরও জানান, কিশোরে লাশ উদ্ধারের পর থানা পুলিশের একটি চৌকশ টিম বিভিন্ন তথ্য বিশ্লেষন করে আজ ভোর রাতে জাহঙ্গীরকে গ্রেফতার এবং তাহার দেখানো মতে মৃত রাসেলের মোবাইল, ভ্যানের চাবি ও ভ্যান বিক্রির নগদ ৫,৫০০ টাকা, ০৪ টি ব্যাটারি এবং হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত লুংগি ও বাশের লাঠি উদ্ধার করে থানা পুলিশ। 

গ্রেফতারকৃত আসামী জাহাঙ্গীর কিশোর রাসেলকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলেও সংবাদ সন্মেলন জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান।

সম্পর্কিত সংবাদ

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

জাতীয়

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

ফটোগ্যালারী

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

এক ফেসবুক বন্ধু আবেগপ্লুত হয়ে সিলেটের শিববাড়ীর আতিয়া মহলে জঙ্গী দমনে আইন শৃংখলা বাহিনী সহ সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানের ক...

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

শাহজাদপুর

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

দেশে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বকালীন ছুটির পাশাপাশি পিতৃত্বকালীন ছুটির বিধান চালু করেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্বকবি রব...

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

জীবনজাপন

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি হচ্ছে, ঈদের পর পরই উহা আদায় করা এবং পরস্পর আদায় করা। বিদ্বানগণ এভাবেই...

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

ধর্ম

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

শামছুর রহমান শিশির ও রাজীব রাসেল : আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইয়ামেন শাহাজাদা হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রহ.) এর...

শাওয়ালের চাঁদ দেখা গেছে; আগামীকাল ঈদ