শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪
ছবি- সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরে জীবিত ব্যক্তিকে নামে মৃত্যু সনদ দেওয়ার অপরাধে উপজেলার ১১নং সোনাতনি ইউনিয়নের সচিব হোসেন মোহাম্মদ সরোয়ার্দিকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

এর আগে জীবিত ব্যক্তিকে নামে মৃত্যু সনদ দেওয়ার অপরাধে আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারি করলে গতমঙ্গলবার দুপুরে শাহজাদপুর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আত্নসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে আসামি হোসেন মোহাম্মদ সরোয়ার্দিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ শাহজাদপুরে চৌকি আদালতের জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট গোলাম রব্বানী। আদালতের ব্রেঞ্চ সহকারি(পেশকার) মোঃ আশরাফুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এরআগেও হুমাইরা (১৬) নামে এক রোহিঙ্গা কিশোরীকে সোনাতনি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জন্মসনদ দেওয়া হয়। সে মানিকগঞ্জে অবৈধভাবে পাসপোর্ট করতে গিয়ে আটক হয়।

আদালত সুত্রে জানা যায়, উপজেলার সোনাতনী ইউনিয়নের বাসিন্দা রহম আলির ছেলে মোঃ বাবু মিয়া একটি মাদক মামলায় কারাগারে থাকা কালিন গত ৪ অক্টোবর আদালতে বাবু মিয়ার ছোট ফুপু ডালিয়া খাতুনকে মৃত্যুবরণ করেছেন মর্মে তার দাফন কাফনের জন্য মাদক মামলার আসামির বাবুর জামিনের জন্য আবেদন করে। মৃত্যু সনদটি আদালতের সন্দেহ হওয়ায় পুলিশের উপড় তদন্তভার দেন আদালত। এতেই বেড়িয়ে আসে থলের বিড়াল। যে ডালিয়া খাতুনকে মৃত বলা হয়েছে তিনি উক্ত ইউনিয়নের ছোট চামতারা গ্রামের মোহাম্মদ আলির স্ত্রী মোছাঃ ডালিয়া খাতুন এখনো জীবিত আছেন। অর্থাৎ আদালতে জমা দেওয়া ডালিয়া খাতুনের মৃত্যু সনদটি ভুয়া বলে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ।

আদালত পুলিশের তদন্ত প্রতিবেদন আমলে নিয়ে ইউপি সচিব হোসেন মোহাম্মদ সরোয়ার্দি ও মাদক মামলার আসামি বাবুর নিকট আত্বীয় আমজাদকে অভিযুক্ত করে মামলা রুজু করেন। এ মামলার অপর আসামি আমজাদ পলাতক আছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সোনাতনী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান জানান. ঐ মৃত্যু সনদে আমি  স্বাক্ষর করিনি। ঐ স্বাক্ষর আমার কিন্তু ওটা স্ক্যান করা স্বাক্ষর। আমজাদ বলতে পারবে সনদটি সে কোথায় পেয়েছে। আমজাদকে এ ব্যাপারে কয়েকবার ফোন করেছি কিন্তু সে কিছু বলেনি। এদিকে আমজাদের ফোন নাম্বার চাইলে তিনি বলেন নাম্বার নেই। একটু আগে বললেন আমাজাদকে কয়েকবার ফোন করেছি তাহলে নাম্বার নাই কেন এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন আমার আরেক মোবাইলে নাম্বার আছে সেটা বাড়িতে রেখে আসছি কাছে নাই।

অপরদিকে এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান জানান, সাজাপ্রাপ্ত হলে ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ সালে কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে মানিকগঞ্জে অবৈধভাবে পাসপোর্ট করতে এসে হুমাইরা (১৬) নামে কিশোরী আটক হয়। সে রোহিঙ্গা কিশোরী উপজেলার সোনাতনি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে জন্মসনদ গ্রহণ করেন। পাসপোর্ট কর্মকর্তা কাগজপত্র দেখে সন্দেহ হওয়ায় তাকে থানা পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

সম্পর্কিত সংবাদ

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

জাতীয়

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

ফটোগ্যালারী

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

এক ফেসবুক বন্ধু আবেগপ্লুত হয়ে সিলেটের শিববাড়ীর আতিয়া মহলে জঙ্গী দমনে আইন শৃংখলা বাহিনী সহ সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানের ক...

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

শাহজাদপুর

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

দেশে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বকালীন ছুটির পাশাপাশি পিতৃত্বকালীন ছুটির বিধান চালু করেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্বকবি রব...

বাঘাবাড়ী মিল্কভিটা কারখানায় সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

ফটোগ্যালারী

বাঘাবাড়ী মিল্কভিটা কারখানায় সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : গতকাল (সোমবার) রাতে বাংলাদেশ দুগ্ধ উৎপাদনকারী সমবায় সমিতি লিমিটেড (মিল্কভিটা) এর বাঘাবাড়ী কারখানার...

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

জীবনজাপন

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি হচ্ছে, ঈদের পর পরই উহা আদায় করা এবং পরস্পর আদায় করা। বিদ্বানগণ এভাবেই...

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

ধর্ম

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

শামছুর রহমান শিশির ও রাজীব রাসেল : আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইয়ামেন শাহাজাদা হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রহ.) এর...