বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১

বাংলাদেশ দলের পেস অ্যাটাকে সবচেয়ে বড় অস্ত্র মুস্তাফিজুর রহমান। তার স্লোয়ার-কাটার-ইন সুইং প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে পরাস্ত করার জন্য যথেষ্ট। চলতি সিরিজে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সই বলে দিতে পারবে পেস অ্যাটাকে মুস্তাফিজ কতটা গুরুত্বপূর্ণ। চার ম্যাচের সবকয়টিতেই অজিদের ভিত নাড়িয়েছেন তিনি। তাকে নিয়ে যতই পরিকল্পনা সাজাচ্ছে ম্যাথু ওয়েডরা, ততই ব্যর্থ হচ্ছেন তারা। পাচ্ছেন না ফিজকে সামলানোর সমাধান।

চলতি সিরিজের প্রথম তিন ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ে বড় অবদান ছিল মুস্তাফিজের। প্রথম ম্যাচে ৪ ওভারে মাত্র ১৬ রানে নেন তিনি ২ উইকেট, পরের ম্যাচে ২৩ রানে তিনটি। তৃতীয় ম্যাচে উইকেট পাননি, কিন্তু ৪ ওভারে মাত্র ৯ রান দিয়ে তিনিই গড়ে দেন পার্থক্য। চতুর্থ ম্যাচেও ৯ রান দিয়ে নেন দুই উইকেট। প্রতিপক্ষে ভিত নাড়িয়েছেন ঠিকই কিন্তু জয়টা হাতছাড়া হয় সাকিবের এক ওভারেই।

১০৪ রানের পুঁজি গড়েও একটা ম্যাচকে জমিয়ে দেওয়ার পুরো কৃতিত্ব নিশ্চয়ই বোলাররা পাবেন। তবে সেখানে সবার থেকে আলাদা মুস্তাফিজ। ৪ ওভার বল করে ১৭টিই দিয়েছেন ডট বল। সাকিবকে এক ওভারে পাঁচ ছয় মারা ড্যান ক্রিস্টিয়ান (১৫ বলে ৩৯ রান) ‍তৃতীয় ম্যাচের মতো এ দিনও মুস্তাফিজের শিকার হন। মুস্তাফিজকে যতই দেখছেন ততই শিখছেন এই অজি ব্যাটসম্যান।

ক্রিস্টিয়ানের মতে, ‘এই ম্যাচের (চতুর্থ) আগে আমরা তাকে (মুস্তাফিজ) খেলার নানা পরিকল্পনা নিয়ে কথা বলেছি। তাকে সামনের পায়ে খেলব নাকি পেছনের পায়ে, অফ সাইডে খেলব নাকি লেগ সাইডে…। তার বলে এত কিছু হয়, পিচেও বল উঠা-নামা করে… তার বল কেমন হবে, বোঝার উপায় নেই। সামনের পায়ে তাকে খেলা সত্যিই কঠিন, কারণ কোনো বল টার্ন করবে, কোনোটি বাউন্স।’

সব পরিকল্পনাই মুস্তাফিজের সামনে এসে ধুমড়ে মুছড়ে পড়েছে জানিয়ে এই ব্যাটসম্যান বলেন, ‘অবশ্যই আমরা কোনো সমাধান বের করতে পারিনি। কারণ এই ম্যাচেও সে ওভারপ্রতি মাত্র ২ রান করে দিয়েছে। সত্যিই দুর্দান্ত বোলিং, কন্ডিশনটাকে নিজের পক্ষে দারুণভাবে কাজে লাগাচ্ছে সে।’

তৃতীয় ম্যাচে হারের কারণ খুঁজতে গিয়ে ক্রিস্টিয়ান বলেন, ‘ওভারপ্রতি ৬ করে করতে পারলেই এখানে জয়ের মতো স্কোর। সেখানে যখন কালকে (শুক্রবার) উইকেটে গেলাম, পুরনো বলে ওভারপ্রতি ১২ করে লাগত। ৫ জন ফিল্ডার ছিল সীমানায়, মাঠও বড়। আর মুস্তাফিজকে খেলা ছিল খুবই কঠিন। এই কন্ডিশনে এই ধরনের বোলিং খেলার চেয়ে কঠিন কিছু বিশ্বের কোথাও কোনো পর্যায়ে হয় না।’

সম্পর্কিত সংবাদ

বাঘাবাড়িতে তেলের গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, কোটি টাকার ক্ষতি

শাহজাদপুর

বাঘাবাড়িতে তেলের গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, কোটি টাকার ক্ষতি

সোমবার (২৫ অক্টোবর) রাত আনুমানিক ১১টায় বাঘাবাড়ি নদী বন্দর ও অয়েল ডিপোর প্রধান ফটকের ৫০ গজ সন্নিকটে ভয়াবহ এই অগ্নিকান্ডের...

কানাডায় নতুন হাই কমিশনার শাহজাদপুরের সন্তান ড.খলিলুর রহমান

জাতীয়

কানাডায় নতুন হাই কমিশনার শাহজাদপুরের সন্তান ড.খলিলুর রহমান

কানাডায় বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার হিসেবে ড. খলিলুর রহমানকে নিয়োগ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। গতকাল রোববার (১৬ আগস্ট)...

সন্ত্রাস প্রতিহতে গ্রামবাসীর সম্মিলিত অঙ্গিকার

শাহজাদপুর

সন্ত্রাস প্রতিহতে গ্রামবাসীর সম্মিলিত অঙ্গিকার

ভয়াবহতার মাত্রা এতটাই যে, রাত্রীতে জলবিয়োগের জন্যও কেউ ঘর থেকে বাইরে বের হওয়ার দুঃসাহস দেখায়না। এতোটা গুটিয়ে নেওয়া নিরীহ...

ড্রাইভারকে শ্বাস রোধে হত্যা করে ইউনিলিভারের ৭৫ লাখ টাকার পণ্যসহ ট্রাক ছিনতাই

ড্রাইভারকে শ্বাস রোধে হত্যা করে ইউনিলিভারের ৭৫ লাখ টাকার পণ্যসহ ট্রাক ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ আজ বৃহস্পতিবার ভোরে ড্রাইভারকে শ্বাস রোধে হত্যা করে শাহজাদপুর উপজেলার...

শাহজাদপুর উপনির্বাচন: নৌকার প্রার্থীর সাথে ব্যাবসায়ীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

উপজেলা নির্বাচন

শাহজাদপুর উপনির্বাচন: নৌকার প্রার্থীর সাথে ব্যাবসায়ীদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

আগামী ২রা নভেম্বর সিরাজগঞ্জ-৬ (শাহজাদপুর) আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই উপলক্ষ্যে শাহজাদপুর উপজেলা বণিক সমিতি...

বারবার নির্বাচিত সাবেক মেয়র নজরুল ইসলাম নৌকার হাল ধরতে চান

পৌর নির্বাচন

বারবার নির্বাচিত সাবেক মেয়র নজরুল ইসলাম নৌকার হাল ধরতে চান

আসন্ন শাহজাদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে শাহজাদপুর পৌরসভার দুইবার নির্বাচিত স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত সাবেক মেয়র, উপজেলা আওয়ামী...