বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
করোনা ভাইরাসের ক্রান্তিকাল, বন্যা ও বিভিন্ন ধাতব পদার্থ দিয়ে তৈরি তৈজসপত্রের কু-প্রভাবে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্প পড়েছে চরম সংকটে! মাটির তৈরি জিনিসপত্রের বেচাবিক্রি না হওয়ায় বর্তমানে উপজেলার শতশত মৃৎশিল্পীদের জীবন চলছে ধুঁকে ধুকে। প্রাচীনকাল থেকে বংশপরম্পরায় চলে আসা আবহমান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী মৃৎশিল্পের ধারক-বাহক শাহজাদপুরের শতশত এসব মৃৎশিল্পীদের ভাগ্যাকাশে বিরাজ করছে কালো মেঘের ঘটঘটা! তাদের আয় রোজগার প্রায় শূণ্যের কোটায় নেমে আসায় পরিবার পরিজন নিয়ে খেয়ে না খেয়ে দিনযাপন করছে তারা। দেখার কেউ নেই! সোমবার দুপুরে শাহজাদপুর পৌর এলাকার পালপাড়া মহল্লা সরেজমিন পরিদর্শণকালে গোপাল চন্দ্র পাল (৮১), শংকর পাল (৫২), সুজিত পাল, রণজিত পাল, সুভাষ পালসহ বেশ কয়েকজন মৃৎশিল্পী জানান, প্লাষ্টিক, এ্যালুমিনিয়ামসহ বিভিন্ন ধাতব শিল্পের আগ্রাসনে এমনিতেই মাটির তৈরি জিনিসপত্রের কদর একেবারেই কমেছে। তার পরেও ‘মরার উপর খাড়ার ঘা’ এর মতো মাটির তৈরি হাড়ি,পাতিল, স্যানেটারি ল্যাট্রিনের চাক, পাটা, খাদা, কোলা, সড়া, ব্যাংক, ঝাঝুর ছাকনা, চারি, কাটাখোলা, ভাপাপিঠার খোলা, সাতখোলা, পাঁচখোলা, তিনখোলাসহ বিভিন্ন ধরনের জিনিসপত্র যাও বা বিক্রি হতো; করোনা ভাইরাসের ক্রান্তিকালে ও বন্যাজণিত কারণে তাও থমকে দাঁড়িয়েছে! এটেল মাটি ও জ¦ালানির দাম বৃদ্ধি পেলেও তাদের তৈরি মাটির জিনিসপত্র স্থানীয় হাটবাজারে, বাড়িতে বাড়িতে বিক্রি না হওয়ায় পালপাড়া মহল্লার ২০ পাল পরিবারসহ উপজেলার গাড়াদহ ইউনিয়নের ২ মহল্লার ৫০ পরিবার, নরিনা ইউনিয়নের ৩ মহল্লার ৩০ পরিবার, খুকনী ইউনিয়নের ২৫ পরিবার ও পোরজনা ইউনিয়নের জামিরতার ১০ পাল পরিবারের শতশত মৃৎশিল্পীদের জীবন জীবীকার প্রশ্নে চরম অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। অনেকে ইতিমধ্যেই ঋণপানে জর্জরিত হয়ে পড়েছে। আবার অনেকে লোকসানের ভার সইতে না পেরে পেশা বদলাতে বাধ্য হচ্ছে। স্থানীয় মৃৎশিল্পীরা আরও জানান, এক ট্রাক এঁটেল মাটি ১৫’শ টাকায় ও জ¦ালানি কাঠের গুঁড়া ২’শ টাকায় বস্তাপ্রতি কিনতে হচ্ছে । বৃষ্টিপাতে কাজ বন্ধ রাখতে হচ্ছে। কিন্তু তৈরিকৃত মাটির জিনিসপত্রের দাম তুলনামূলক কম হওয়ায় ও চাহিদা একেবারেই কমে যাওয়ায় বর্তমানে শতশত মৃৎশিল্পীরা চোখেমুখে রীতিমতো সর্ষের ফুল দেখছে। জীবীকা সংকট লাঘবে কেউ সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে না দেয়ায় ওদের মতো চির অবহেলিত, চির পতিত, চির অপাংক্তেয় ও ভাগ্যবিড়ম্বিত শতশত মৃৎশিল্পীদের বিচারের বাণী নিরবে নিভৃতে কাঁদছে।

সম্পর্কিত সংবাদ

জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পাচ্ছেন শাহজাদপুরের সন্তান শেরপুরের পিআইও শামসুন্নাহার শিউলি

শাহজাদপুর

জাতীয় শুদ্ধাচার পুরস্কার পাচ্ছেন শাহজাদপুরের সন্তান শেরপুরের পিআইও শামসুন্নাহার শিউলি

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীর পেশাগত জ্ঞান ও দক্ষতা, সততার নিদর্শন স্থাপন করা, নির্ভরযোগ্যতা ও কর্তব্যনিষ্ঠা, শৃঙ্খলাবোধ, স...

শাহজাদপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ

ধর্ম

শাহজাদপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ ও অসন্তোষ

শাহজাদপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তরিকুল ইসলামের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,'বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি এ বিষয়ে খো...

‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়-বাংলাদেশ’র রেজিষ্টার ড.আব্দুল ওয়াহাবের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক প্রকাশ

শিক্ষাঙ্গন

‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়-বাংলাদেশ’র রেজিষ্টার ড.আব্দুল ওয়াহাবের মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক প্রকাশ

শামছুর রহমান শিশির : ‘রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়-বাংলাদেশ’র রেজিষ্টার ড. আব্দুল ওয়াহাব হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে আজ বুধবার বিকেল...

শাহজাদপুরে ৩ দিনব্যাপী রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী শুরু : ‘আগামী সেশন থেকে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হবে’ --এইচ টি ইমাম

জাতীয়

শাহজাদপুরে ৩ দিনব্যাপী রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী শুরু : ‘আগামী সেশন থেকে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চালু করা হবে’ --এইচ টি ইমাম

শামছুর রহমান শিশির, রাজীব রাসেল, ফারুক হাসান কাহার : উৎসবমুখর ও আনন্দঘন পরিবেশের মধ্যে দিয়ে আজ সোমবার কবিগুরু রবীন্দ্রনা...

শাহজাদপুরে ২ দিন ব্যাপি ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ফটোগ্যালারী

শাহজাদপুরে ২ দিন ব্যাপি ঘোড়দৌড় প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ফারুক হাসান কাহারঃ শাহজাদপুর উপজেলার বৃ-আঙ্গাঁরু গ্রামে বিপুল উৎসাহ উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে বাংলার ঐতিহ্...

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

ফটোগ্যালারী

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

এক ফেসবুক বন্ধু আবেগপ্লুত হয়ে সিলেটের শিববাড়ীর আতিয়া মহলে জঙ্গী দমনে আইন শৃংখলা বাহিনী সহ সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানের ক...