শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪

ফাইনাল খেলা শুরুর আগেই সন্ধ্যার মধ্যে উৎসবমুখর পরিবেশে ভূরিভোজ হবে। তারও আগে বিকেল থেকে চলবে গানবাজনা, আলোচনা। খাওয়ার মেনুতে থাকছে গরু ও মুরগির মাংসের বিরিয়ানি। সম্প্রীতির বন্ধন হিসেবে ব্রাজিল সমর্থকদেরও আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। বিশ্বকাপ ফুটবল ফাইনালের আগে রংপুর টাউন হলে মাঠে এমন আয়োজন করেছেন আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা।

খেলা দেখার জন্য টাউন হলের মাঠে বড় পর্দা লাগানো হয়েছে। রয়েছে উচ্চ শব্দের সাউন্ড সিস্টেম। আর্জেন্টিনা ফ্যানস ক্লাবের পক্ষ থেকে খেলা দেখার আয়োজন ছিল বিশ্বকাপের শুরু থেকেই। এখানে বড় পর্দায় সব কটি খেলা দেখানো হয়। হাজারো মানুষ একসঙ্গে খেলা উপভোগ করেন।

গতকাল শনিবার রাতেও টাউন হল মাঠে ক্রোয়েশিয়া ও মরক্কোর মধ্যকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ দেখতে আসেন অনেক দর্শক। খেলা এই দুই দলের হলেও আলোচনার বিষয় ছিল আর্জেন্টিনা ও ফ্রান্সের মধ্যকার আজকের ফাইনাল ম্যাচ। খেলার সময় অধিকাংশ দর্শক মরক্কোর পক্ষে স্লোগান দিলেও মাঝেমধ্যে আর্জেন্টিনা আর মেসির নাম ধরে স্লোগান ওঠে।

বড় পর্দায় খেলা দেখানোর আয়োজনকারীদের একজন আর্জেন্টিনা ফ্যানস ক্লাবের সভাপতি আফজাল হোসেন বলেন, ‘প্রতিদিন এখানে হাজারো মানুষ খেলা উপভোগ করেছেন। এভাবে খেলা দেখার মজাই আলাদা। প্রতিদিনই ছিল উৎসবমুখর পরিবেশ। শেষ দিনেও এমনটি থাকবে বলে আমাদের বিশ্বাস।’

খেলা উপলক্ষে প্রতিদিনই প্রধান সড়ক থেকে টাউন হলের মাঠে প্রবেশের প্রধান ফটক পর্যন্ত বসে সারি সারি খাবারের দোকান। ভাপা পিঠা, গুড়ের জিলাপি, পেঁয়াজু, ঝালমুড়ির দোকান। চায়ের দোকান তো আছেই। ওসমান গণি নামের একজন এখানে ভ্রাম্যমাণ খাবারের দোকান নিয়ে বসেন। তিনি বলেন, ‘গরম-গরম গুড়ের জিলাপি আর পেঁয়াজুর চাহিদা বেশি। তবে ফাইনালের দিন দুপুর থেকেই দোকান বসবে। কেননা বিকেল থেকেই লোকজন ছুটে আসবে, এমনটিই আশা করা যাচ্ছে।’

আর্জেন্টিনা ফ্যানস ক্লাবের উপদেষ্টা রংপুরের ব্যবসায়ী তানভীর আশরাফী বলেন, ‘এবারের বিশ্বকাপ খেলা বেশ উপভোগ করা হলো। একসঙ্গে হাজার হাজার মানুষের উপস্থিতিতে খেলার আয়োজন অনেক দিন মনে থাকবে। এভাবে খেলা দেখার মজাই আলাদা।’

সম্পর্কিত সংবাদ

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

জাতীয়

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

ফটোগ্যালারী

♦♦ জঙ্গী দমন কোন যুদ্ধ নয় ♦♦ মুক্তিযুদ্ধতো নয়'ই ♦♦

এক ফেসবুক বন্ধু আবেগপ্লুত হয়ে সিলেটের শিববাড়ীর আতিয়া মহলে জঙ্গী দমনে আইন শৃংখলা বাহিনী সহ সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানের ক...

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

শাহজাদপুর

পিতৃত্বকালীন ছুটি চালু করল রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়

দেশে প্রথমবারের মতো মাতৃত্বকালীন ছুটির পাশাপাশি পিতৃত্বকালীন ছুটির বিধান চালু করেছে রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্বকবি রব...

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

জীবনজাপন

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি কি?

শাওয়ালের ছয়টি রোযা পালন করার ক্ষেত্রে উত্তম পদ্ধতি হচ্ছে, ঈদের পর পরই উহা আদায় করা এবং পরস্পর আদায় করা। বিদ্বানগণ এভাবেই...

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

ধর্ম

আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মখদুম শাহদৌলা (রঃ) এর বাৎসরিক ওরশ শেষ হচ্ছে

শামছুর রহমান শিশির ও রাজীব রাসেল : আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইয়ামেন শাহাজাদা হযরত মখদুম শাহদৌলা শহিদ ইয়ামেনি (রহ.) এর...

শাওয়ালের চাঁদ দেখা গেছে; আগামীকাল ঈদ