বুধবার, ২৯ মে ২০২৪
অভিবাসন বিরোধী মনোভাবের চরম বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২১ জুলাই আরেকটি নির্বাহী আদেশ জারি করলেন। এর ফলে চলমান আদশশুমারিতে অন্তর্ভুক্ত হতে পারবে না অবৈধভাবে বসবাসরতরা। গত বছর জারিকৃত অপর এক নির্বাহী আদেশে আদশশুমারি ফরমে ‘সিটিজেনশিপ’ কলাম রাখতে বলেছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টে চ্যালেঞ্জ করায় সে নির্দেশ কার্যকর হতে পারেনি। এ জন্য নতুন নির্দেশ দিলেন গণনা থেকে অবৈধ অভিবাসীদের বাদ দিতে। এই আদেশের বিরুদ্ধেও আদালতে যাওয়ার হুমকি দিয়েছে মানবাধিকার ও অভিবাসীদের অধিকার নিয়ে কর্মরতরা। উল্লেখ্য, ১৯৭০ সাল থেকে ১০ বছর অন্তর অনুষ্ঠিত আদশশুমারির ফরমে আগে কখনো নাগরিকের ইমিগ্রেশন স্ট্যাটাস নিয়ে কোন প্রশ্নের উদ্রেক ঘটেনি। আদশশুমারির ভিত্তিতে কংগ্রেসনাল ডিস্ট্রিক্ট পুনর্গঠিত হয়। অর্থাৎ নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষ না থাকলে নিকটবর্তী ডিস্ট্রিক্টের সাথে একিভূত হয়। এর আগের আদশশুমারিতে নিউইয়র্ক এবং ওহাইয়ো দুটি আসন খুইয়েছে। অপরদিকে, টেক্সাস যোগ করেছে ৪টি আসন। সবগুলো রিপাবলিকানদের কব্জায় গেছে। এবারের এই বিধি বহাল থাকলে নিউজার্সি এবং ক্যালিফোর্নিয়া অন্তত দুটি আসন হারাবে। মঙ্গলবার এই নির্বাহী আদেশ জারির সময় ট্রাম্প বলেছেন, যারা বেআইনিভাবে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছে, তারা কখনই ফেডারেল তহবিলের হিস্যা হতে পারে না। তাদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের নীতি-নির্ধারণী ক্ষমতা শেয়ার করার প্রশ্নই উঠে না। আমার প্রশাসন কখনই এমন কোন ব্যক্তিকে সাপোর্ট করতে পারে না, যারা বেআইনীভাবে অবস্থান করছে। তারা তো স্থায়ী কেউ নয়। যে কোন সময় তাদেরকে চলে যেতে হবে নিজ নিজ দেশে। তাই এমন অবৈধদেরকে কখনোই রাজনৈতিক ক্ষমতা দিতে পারি না। এই আদেশের কপি সরাসরি বাণিজ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হয়েছে। কারণ, আদশশুমারি পরিচালিত হচ্ছে এই মন্ত্রণালয়ের নেতৃত্বে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মন্তব্য করেছেন, নভেম্বরের নির্বাচনে কট্টরপন্থি ভোটারের সমর্থন বৃদ্ধির অভিপ্রায়ে ট্রাম্প এমন আদেশ জারি করলেন। অভিবাসন বিরোধী জোরালো পদক্ষেপ নিলেই ট্রাম্পের ভোট ব্যাংক সংহত হয়। কারণ, অভিবাসীদের পক্ষ অবলম্বনকারি ভোটারের অনেকেই কেন্দ্রে যান না। তথ্য সুত্রঃ বিডি প্রতিদিন

সম্পর্কিত সংবাদ

মাদকের অন্ধকার থেকে ৫ যুবকের  আলোর জীবনে পদার্পণ

স্বাস্থ্য

মাদকের অন্ধকার থেকে ৫ যুবকের আলোর জীবনে পদার্পণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, শাহজাদপুর : ‘মাদক যখন সেবন করেছি, তখন মানুষ খুন করা ছাড়া এমন কোন অপরাধ নাই যা করতো নূন্যতম দ্বিধাবোধ ক...

শাহজাদপুরে মানহীন ২০ বোতল পানি ধ্বংশ

অপরাধ

শাহজাদপুরে মানহীন ২০ বোতল পানি ধ্বংশ

শাহজাদপুর প্রতিনিধি : গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকালমঙ্গলবার দুপুরে শাহজাদপুর পৌর এলাকার দ্বারিয়াপুর বাজার এলাকা থেকে ২০ বো...

শাহজাদপুরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মানিক গ্রেফতার

অপরাধ

শাহজাদপুরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী মানিক গ্রেফতার

শামছুর রহমান শিশির : শাহজাদপুরের কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী, ৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী ও প্রায় এক ডজন মাদক মামলার প্র...

সিরাজগঞ্জে পৃথক বজ্রপাতে কলেজ ছাত্র ও পিতা-পুত্র সহ ৫ জন নিহত ও ২ জন আহত

সিরাজগঞ্জ জেলার সংবাদ

সিরাজগঞ্জে পৃথক বজ্রপাতে কলেজ ছাত্র ও পিতা-পুত্র সহ ৫ জন নিহত ও ২ জন আহত

মোঃ মুমীদুজ্জামান জাহান,সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর, কাজিপুর ও কামারখন্দ উপজেলায় বজ্রপাতে দুই কলেজ ছাত্র,...

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে ধস- সিরাজগঞ্জে ৩৫ গ্রাম প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা

সিরাজগঞ্জ জেলার সংবাদ

বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধে ধস- সিরাজগঞ্জে ৩৫ গ্রাম প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কা

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার রতনকান্দি ইউনিয়নের বাহুকা এলাকায় বাঁধ ধসে লোকালয়ে প্রবেশ করতে শু...

হাইকোর্টে নির্দেশনা : শাহজাদপুরে স্বাধীনতা বিরোধী মাওলানা ছাইফুদ্দিনের নাম মুছে ফেললো কলেজ শিক্ষার্থীরা

জাতীয়

হাইকোর্টে নির্দেশনা : শাহজাদপুরে স্বাধীনতা বিরোধী মাওলানা ছাইফুদ্দিনের নাম মুছে ফেললো কলেজ শিক্ষার্থীরা

ডেস্ক রিপোর্ট : বৃহত্তর পাবনা জেলা পিস কমিটির চেয়ারম্যান সাইফুদ্দিন এহিয়ার নামে থাকা শাহজাদপুরে স্থাপিত বিভিন্ন শিক্ষা...