শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২
আমরা প্রথম থেকেই বলে আসছি, যাদের নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা যাচাই বাছাই কমিটি গঠিত হলো, তারা প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা কিনা আগে সটাই যাচাই বাছাই করুন। এখনো আমরা ঐ দাবীতেই বহাল। মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা ও কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের প্রকৃত কাজ কি জানা নেই। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নে কিম্বা মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস রক্ষায় ও মুক্তিযোদ্ধাদের স্বার্থ রক্ষায় তাদের কোন ভূমিকা নেই। দীর্ঘ সময় ধরে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নামক কারখানায় তৈরী হয়েছে তৈরী হয়েছে, হচ্ছে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। সিংহভাগ ইউনিয়ন, উপজেলা, জেলা পর্যায়ে সংসদগুলোর নেতৃত্বে রয়েছে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। কিছু কিছু উপজেলায় তারা তাদের নিজেদের আত্নীয় স্বজন, বন্ধুবান্ধব ও সমর্থকদের অর্থের বিনিময়ে মুক্তিযোদ্ধা বানিয়েছে। তারাই আবার ভোট দিয়ে মুক্তিযোদ্ধার নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা করে। ভুয়ারা সংখ্যায় বেশী সে কারনে কখনো প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধারা সংসদের নেত্রীত্বে আসতে পারেনা। ভুয়ারা সংসদের নেত্রীত্বে থাকার কারনে তারাই বার বার যাচাই বাছাই কমিটির সদস্য নির্বাচিত হয়। আবার তারাই ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা বানায়। মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রণালয় সার্কুলার দিয়ে যাচাই বাছাই করে। কমিটি দেয় সংসদের নেতারা, অনুমোদন দেয় জামুকা। যতবার জাচাই বাছাই ততবার মুক্তিযোদ্ধা বারে। হায়রে দেশ! দেশের রাজনীতি! মুক্তিযোদ্ধার সঙ্গা তৈরী হয় মুক্তিযুদ্ধের ৪৫ বছর পর। তাহলে ৭১ সালে প্রতিষ্ঠিত যুদ্ধকালীন স্বাধীন বাংলাদেশের ঘোষিত সরকার কোন সঙ্গার ভিত্তিতে মুক্তিযোদ্ধার প্রশিক্ষণ, অস্ত্র এবং ১১ টি সেক্টরের অধীনে যুদ্ধকালীন সময়ে যুদ্ধ পরিচালনা করেছিলেন। যাদের সঙ্গা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বানানো হচ্ছে তারা কি রনাঙ্গনে স্বশস্ত্র যুদ্ধে অংশ গ্রহন করে মৃত্যুর জন্য শপথ নিয়ে ছিলেন? কোন রনাঙ্গনে কি তারা যুদ্ধে অংশ গ্রহন করেছিলেন? তবে ঢালায় ভাবে সবাইকে কেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সঙ্গায় ভূষিত করা হচ্ছে? ৪৫ বছর পর সঙ্গা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বানানো যতটা সহজ, মুক্তিযুদ্ধকালীন পাকবাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করাটা ততোটাই কি সহজ ছিল? রাজনৈতিক বিবেচনায় যে দল যখন ক্ষমতায় এসেছেন তারা তাদের মত করে মুক্তিযযোদ্ধা বানিয়েছেন, বানাচ্ছেন। তারা কি কখনো ভেবেছেন মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের গৌরবটা তারা কিভাবে ধ্বংস করছেন? রাজাকার ভুয়াদের যদি আপনারা মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় স্থানদিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের কথা বলেন, তাহলে কি ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু থাকে? জাতির জনক থাকে? বঙ্গবন্ধু কি আপনাদের কানে কানে বলে গিয়েছিলেন, আমার মৃত্যুর পর তোমরা সঙ্গা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা বানিও। রাজাকারকে যদি মুক্তিযোদ্ধা বানান তার কি সঙ্গা হবে তবে সেটিও বলুন। ভুয়া স্বাধীনতা বিরোধী ও রাজনৈতিক বিবেচনায় যাদের মুক্তিযোদ্ধা বানানো হয়েছে, হচ্ছে তাদের কি সঙ্গায় সঙ্গায়িত করা হবে সটাও নির্ধারন করুন। আমরা স্বশস্ত্র মুক্তিযোদ্ধারা বাঘে মহিষে একঘাটে পানি খেতে চাইনা। আমাদেরকে ভাতা, কোটা ও অন্যান্য সুযোগ সুবিধা দিয়ে বঙ্গবন্ধু কন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাদের সম্মানীত করেছেন। সেই সম্মানকে আপনারা ভুয়াদের, রাজাকারদের দেবেন সেটা আমরা বেঁচে থাকতে মেনে নিতে পারিনা। লজ্জায় আমাদের মাথা হেট হয়ে যায়। গ্রামের সাধারণ মানুষ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের চেনে, আবার ভুয়াদেরও চেনে। আপনার চেনেন না বা চেনার চেষ্টাও করেন না। আপনাদের এতো বড় শক্তিশালী প্রসাশন যন্ত্র থাকতে আপনার যাচাই বাছাই কালে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের দিয়ে যাচাই বাছাই না করে সংসদের নেতা নির্ভর হন কেন? প্রয়োজনে গ্রামে গ্রামে গিয়ে গোপনে অনুসন্ধান চালান। গ্রামের লোকেই বলে দেবে কে আসল, কে নকল মুক্তিযোদ্ধা। যদি আপনারা ভোটের জন্য জগাখিচুরি করেন তবে আগামিদিনে ইতিহাসের কলঙ্কের দায়ভার আপনাদেরকেই বহন করতে হবে। বঙ্গবন্ধু বঙ্গবন্ধু বলে চেচামেচি করলেও ইতিহাস ভিন্ন কথা বলবে। বঙ্গবন্ধু কবর থেকে উঠে এসে আপনাদেরকে ইতিহাসের নায়ক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করবেনা। অতএব সময় থাকতেই সাধূ সাবধান হোন। - বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আবুল বাশার(এফ এফ নং-৮৭৬৮)

সম্পর্কিত সংবাদ

শাহজাদপুরে কৃষি জমি থেকে কৃষকের লাশ উদ্ধার

শাহজাদপুর

শাহজাদপুরে কৃষি জমি থেকে কৃষকের লাশ উদ্ধার

সিরাজগঞ্জ শাহজাদপুরের জালালপুর ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামে কৃষি জমি থেকে মঙ্গলবার(২২ নভেম্বর) সকালে এক কৃষকের মরদেহ উদ্ধার ক...

শাহজাদপুর উপজেলা বস্ত্র মালিক ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের কমিটি গঠন

অর্থ-বাণিজ্য

শাহজাদপুর উপজেলা বস্ত্র মালিক ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের কমিটি গঠন

শামছুর রহমান শিশির: শাহজাদপুর উপজেলা বস্ত্র মালিক ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের কমিটি গঠন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ উপলক্ষ...

কোরবানীকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জের কামাররা মহাব্যস্ত

কোরবানীকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জের কামাররা মহাব্যস্ত

সৈয়দ শামীম শিরাজী, সিরাজগঞ্জ: গ্রামীণ প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী কামার শিল্প নানা সংকটে আজ প্রায় বিলুপ্তির পথে। প্রয়োজনীয় উপ...

শাহজাদপুরে কৃষকদের মধ্যে চাষের যন্ত্রপাতি বিতরণ করলেন এমপি স্বপন

কৃষি

শাহজাদপুরে কৃষকদের মধ্যে চাষের যন্ত্রপাতি বিতরণ করলেন এমপি স্বপন

শাহজাদপুর প্রতিনিধি : খামার যান্ত্রিকীকরণের মাধ্যমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধি প্রকল্প ( ২য় পর্যায়) এর আওতায় ৫০ % উন্নয়ন সহায়তায়...